1. admin@miarhat.com : admin :
শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:০২ অপরাহ্ন
সর্বশেষ হেডলাইন
মিলন আব্দুল্লাহ ৩য় বই স্মৃতির কয়েদির মোড়ক উন্মোচিত অসহায় রোগীদদের সেবা করে মানবিকতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন শেবাচিমের কর্মচারী সুমন আলহাজ্ব সৈয়দ আবুল হোসেন স্মরণে বিনামূল্যে চক্ষু সেবা মাননীয় কৃষি মন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান ডিকেআইবি মাদারীপুর ৩ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থীর মিছিলে বোমা হামলা কালকিনিতে বিজয় দিবসে আনন্দ র‌্যালি করে রেকর্ড করলেন শিকারমঙ্গল মানব কল্যান সংগঠন মাদারীপুর ৩ আসনের আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম ক্রয় করলেন যারা ৬ষ্ঠ বারের মত চ্যাম্পিয়ন হলেন অস্ট্রেলিয়া মাদারীপুর ২ আসনের মনোনয়ন ফরম ক্রয় করবেন গোলাম রাব্বানী কালকিনিতে শান্তি সমাবেশে জনতার ঢল।

কালকিনিতে প্রশাসনের অনুমতি ছাড়াই জমেছে কুন্ডু বাড়ি মেলা

  • আপডেট সময় : রবিবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২২
  • ১২৫ বার পঠিত

রতন দে,স্টাফ রির্পোটারঃ

মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের ভূরঘাটা বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন কুন্ডু বাড়ি মেলা প্রশাসনের অনুমতি ছাড়াই জমে গেছে বলে জানা গেছে।
মেলা বসলে মহাসড়কে যানজট ও সড়কে দূর্ঘটনার আশংঙ্কা সচেতন মহলের।
সরেজমনি ও প্রশাসন সুত্রে জানা যায়, মাদারীপুর জেলার কালকিনি ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের ভূরঘাটা বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন কুন্ডু বাড়ি কালিমন্দিরে প্রতিবছরই কালি পুজা অনুষ্ঠিত হয়,এবছরও হবে হিন্দুধর্মালম্বীদের কালিপূজা। আর এ কালিপুজাকে ঘীরে অনুষ্ঠিত হয়, কুন্ডু বাড়ি মেলা।
প্রতিবছরের ন্যায় এবারও অনুষ্ঠিত হবে কালিপূজা। কিন্তুু প্রশাসনের অনুমোদন নেই মেলার। আর দক্ষিনবঙ্গের সব চেয়ে বড় মেলা কুন্ডু বাড়ি মেলা প্রশাসনের অনুমোদন ছাড়াই জমেছে। ইতিমধ্যে শত শত দোকান সাজিয়ে বসেছে দোকানীরা। আর এ মেলায় বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলা থেকে দোকানীরা বিভিন্ন সামগ্রীর দোকান বসিয়ে বেচাকেনা করেন। হাজার হাজার লোকের সমাগম হয় এ মেলায়।
কালিমন্দিরের সামনে জায়গা কম থাকার কারনে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়ক জুড়েই বসতে হয় দোকানীদের এবং সৃস্টি হয় যানজটের।অনেক সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দূর্ঘটনা।
এবছর কুন্ডু বাড়ি মেলা না হওয়ার ব্যাপারে,এস্থানীয় এলাকা থেকে ডিসি বরাবর একটি আবেদন হয়েছে বলে জানাগেছে।
নাম প্রকাশে অনে”ছুক একাধীক রাজনৈতিক নেতা ও সচেতন মহলের ব্যক্তি বলেন, গত ২০১৮ সালে এ মেলায় একটি ছেলেকে প্রকাশ্যে ছুড়ির আঘাতে হত্যা হয়।এখানে প্রচুর পরিমানে লোকের সমাগম হয়।বর্তমানে আমাদের পদ্মা সেতু উদ্ভোধনের পরে,দক্ষিন বঙ্গে যাওয়ার একমাত্র রাস্তা ঢাকা-বরিশাল মহাসড়ক।আর এ সড়কে চলে হাজার হাজার যানবাহন। এসড়কের উপরে যদি মেলা বসে,তাহলে প্রচুর যান জটের সৃষ্টি হবে এবং ঘটতে পারে বড় ধরনের দূর্ঘটনা।
কালকিনি থানার ওসি মোঃ শামিম হোসেন বলেন, মেলা বসার ব্যাপারে আমরা এখনও অনুমোদনের কাগজ পাইনি।
কুন্ডু বাড়ি মেলা বসার ব্যাপারে মাদারীপুর জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন বলেন, মেলা বসার কোন অনুমোদন দেওয়া হয়নি।

এ জাতীয় আরও খবর

© All rights reserved © 2022 Miarhat.com

Theme Customized By Miarhat