1. admin@miarhat.com : admin :
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৭:১৪ অপরাহ্ন
সর্বশেষ হেডলাইন
মিলন আব্দুল্লাহ ৩য় বই স্মৃতির কয়েদির মোড়ক উন্মোচিত অসহায় রোগীদদের সেবা করে মানবিকতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন শেবাচিমের কর্মচারী সুমন আলহাজ্ব সৈয়দ আবুল হোসেন স্মরণে বিনামূল্যে চক্ষু সেবা মাননীয় কৃষি মন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান ডিকেআইবি মাদারীপুর ৩ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থীর মিছিলে বোমা হামলা কালকিনিতে বিজয় দিবসে আনন্দ র‌্যালি করে রেকর্ড করলেন শিকারমঙ্গল মানব কল্যান সংগঠন মাদারীপুর ৩ আসনের আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম ক্রয় করলেন যারা ৬ষ্ঠ বারের মত চ্যাম্পিয়ন হলেন অস্ট্রেলিয়া মাদারীপুর ২ আসনের মনোনয়ন ফরম ক্রয় করবেন গোলাম রাব্বানী কালকিনিতে শান্তি সমাবেশে জনতার ঢল।

ডাসারে ও এম এসে’র ১২ বস্তা চাউল আটক করল স্থানীয় জনতা

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১৭৭ বার পঠিত

রতন দে স্টাফ রিপোর্টারঃ

মাদারীপুরের ডাসার উপজেলার উত্তর ডাসার কাঁঠালতলা বাজার হতে ডিলার সৈয়দ মুবাচ্ছের আলী বিপ্লব এর কাছ থেকে ১২ বস্তা চাউল আটক করেন স্থানীয় স্থানীয় এলাকাবাসী।

ডাসার থানা পুলিশ ঘটনা স্থানে গিয়ে ১২ বস্তা চাউল জব্দ করেন। ভোক্তা অধিকার আইনে পনেরো(১৫,০০০) হাজার টাকা জরিমানা করেন নির্বাহী কর্মকর্তা সারমীন ইয়াছমীন।

সরেজমিন ও স্থানীয় এলাকাবাসী সুত্রে জানাযায়, খাদ্য অধিদপ্তর পরিচালিত উপজেলা ভিক্তিক ডিলার এর মাধ্যমে সরকার ঘোষিত জনপ্রতি ৫ কেজি চাউল ৩০ টাকা ধরে বিক্রয় করেন।

কিন্তু মেসার্স তন্বী এন্টারপ্রাইজ (সৈয়দ মুবাচ্ছের আলী বিপ্লব) বেশি টাকা মুনাফার জন্য বরাদ্দ কৃত চাউল গোপনে বিভিন্ন স্থানে মজুদ করে রেখে, আগত ক্রেতাদের বলেন চাউল শেষ হয়ে গেছে। পরে দীর্ঘখন অপেক্ষা করে চাউল ছাড়া ফিরে যান অনেকে।

আজ দুপুরে সেই ও এম এসের চাউল গোপনে বস্তাভর্তি বাহিরে বিক্রয় করলে, স্থানীয় জনসাধারণের নজরে আসলে চাউল আটক করে পুলিশকে খবর দেন।
পরে ডাসার থানার ওসি মোঃ হাসানুজ্জামান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনা স্থানে গিয়ে বিভিন্ন যায়গায় রাখা ১২ বস্তা চাউল জব্দ করেন এবং স্থানীয় বাজারের বাসিন্দা কাজল হাওলাদারের জিম্মায় রাখেন।

অভিযুক্ত ডিলার সৈয়দ মুবাচ্ছের আলী বিপ্লব বলেন, জনসাধারণের চাপের কারনে পাশের ঘরে চাউল রেখে ছিলাম। যে বস্তা চাউল স্থানীয় লোকজন আটক করে,সেই বস্তা আমার এখানে যারা কাজ করে তাদের টাকার পরিবর্তে দিয়েছি।

তিনি আরও বলেন,যারা চাউল আটক করে পুলিশকে খবর দিয়েছে,তারা আমার কাছে চার বস্তা চাউল চাইছে। আমি দেইনি বিদায়, চক্রান্ত করে এ কাজ করেছে।

উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক শহিদুল ইসলাম বলেন, ডিলার কোন ভাবেই, এই চাউল বেশী মুনাফার আসায় বাহিরে বিক্রয় করতে পারবে না।
যদি সে বাহিরে বিক্রয় করে,তাহলে সে অপরাধ করেছে।

ডাসার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট) সারমীন ইয়াছমীন ভোক্তা অধিকার আইনে ভ্রাম্যমাণ আদালতে মাধ্যমে পনেরো হাজার ১৫,০০০/ টাকা জরিমানা করেন।

এ জাতীয় আরও খবর

© All rights reserved © 2022 Miarhat.com

Theme Customized By Miarhat